Admission

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজে ভর্তির আবেদন (২০২০-২১)

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজে (২০২০-২১) সেশনে অনলাইনে ভর্তির আবেদন শুরু।দীর্ঘ ১৫ মাসের অধিক সময় ধরে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করোনা মহামারীর কারণে বন্ধ রয়েছে। বর্তমান বিশ্বে মহামারী করোনার কারণে সবকিছু পিছিয়ে গেছে।এক কথায় মানুষের জীবনযাত্রার মান অনেক টায় কষ্টের হয়ে গেছে।এখন চাকরি পাওয়া সত্যি অনেক মুশকিল।

এমনিতেই আমাদের দেশে চাকরির অনেক মারাত্মক ভাবে অভাব। তারপরেও জীবনের এ লড়াইয়ে লড়তে হবে এবং সফলতা অর্জন করতে হবে বা ছিনিয়ে আনতে হবে। তথ্য অনুযায়ী আশার বাতির মতো জানা গেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজে (২০২০-২১) সেশনে অনলাইনে ভর্তির আবেদন শুরু হবে। অনলাইনে ভর্তির আবেদন শুরু ১ জুলাই থেকে,আর শেষ হবে ১৪ আগস্ট। আবেদনের যোগ্যতা সম্পর্কে আমরা একটু জেনে নিবোঃ

২০১৫ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত মাধ্যমিক বা সমমান এবং ২০২০ সালে উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ সকল শিক্ষার্থীরা যারা বিভিন্ন ইউনিটের শর্ত পূরণ করতে পারবে কেবল তারাই আবেদন করতে পারবে বলে জানা গিয়েছে।

* ইউনিট ভিত্তিক আবেদনের যোগ্যতা সম্পর্কে আমরা নিচে আলোচনা করবোঃ

ক ইউনিট ( বিজ্ঞান অনুষদ); এসএসসি এইচএসসি দুটো মিলিয়ে নূন্যতম জিপিএ ৭.০০ থাকতে হবে ( অবশ্যই চতুর্থ বিষয় সহ) *

খ ইউনিট (কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ) এসএসসি এইচএসসি দুটো মিলিয়ে নূন্যতম জিপিএ ৬.০০ থাকতে হবে (অবশ্যই চতুর্থ বিষয় সহ)

গ ইউনিট ( বাণিজ্য অনুষদ) এসএসসি এইচএসসি দুটো মিলিয়ে নূন্যতম জিপিএ ৬.৫০ থাকতে হবে (অবশ্যই চতুর্থ বিষয় সহ)

এছাড়াও জানা গিয়েছে (২০২০-২১) শিক্ষা বর্ষে পরীক্ষা নেওয়া হবে ১২০ নাম্বারের যার পাস নম্বর ৪০% অর্থাৎ ৪৮। শিক্ষার্থীদরে আবেদন ফি ৪৫০ টাকা করে ধার্য করা হয়েছে। ভর্তি পরীক্ষার সকল আপডেট পেতে আমাদের সাথেই থাকুন। বিস্তারিত তথ্য পিন পোস্ট করা আছে। উল্লেখ্য, ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ও সময় করোনা পরিস্থিতির উপর বিবেচনা করে পরবর্তীতে জানানো হবে।

করোনা মহামারীর কারণে তারিখ ও সময় এখনও জানানো যাচ্ছে না। ভর্তি পরীক্ষার বিস্তারিত তথ্য ও নির্দেশনা সাত কলেজের ওয়েবসাইটে অতি দ্রুত জানিয়ে দেয়া হবে। সাত কলেজের ভর্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট হলঃ- http://7college.du.ac.bd/admission.php। আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের কর্তৃপক্ষকে স্বাগত জানাই এমন সুন্দর সিদ্ধান্তের জন্য।কারণ করোনা মহামারীর কারণে সবকিছু পিছিয়ে গিয়েছে।শিক্ষার্থীরা ভুগছে চরম ভোগান্তিতে।আর ক্লাস,পড়াশোনা ও পরীক্ষা বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীদের জীবন অস্বাভাবিক হয়ে গিয়েছে।

কিন্তু এখন তারা এই ভর্তির আবেদনের কথা শুনে একটু হলেও প্রশান্তি পাবে।সকল পরিকল্পনার পরেও মহামারী করোনার কারণে সবকিছু পিছিয়ে যাচ্ছে বার বার। আর কি বা করার একদিকে জীবন আর অন্যদিকে পড়াশোনা জীবিকা।আসলে এই মহামারীর ভেতরে মানুষ পরেছে উভয়সংকটে।কারণ না পারছে মানুষ ভালোভাবে জীবনযাপন করতে না পারছে মানুষ ঘরে বসে থাকতে,কারণ ঘরে বসে থাকলে জীবিকা চালানো সম্ভব না আর বাইরে বের হলে জীবন নিয়ে ঝুঁকি।

তারপরেও সবকিছুর পরে শিক্ষার বিষয়টা এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে কারণ দীর্ঘ সময় ধরে সকল শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।অসংখ্য কষ্ট হলেও শিক্ষার বিষয়গুলো স্বাভাবিকে আনার চেষ্টা করতে হবে।এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের শিক্ষা বিষয়ক সকল তথ্য পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

সূত্রঃডেইলি বাংলাদেশ

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button

Adblock Detected

Please Disable your AdBlocker.