Admission

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স তৃতীয় বর্ষের ফল প্রকাশ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স তৃতীয় বর্ষের ফল প্রকাশ হয়েছে। বর্তমান বিশ্বে মহামারী করোনার কারণে সবকিছু পিছিয়ে গেছে।এক কথায় মানুষের জীবনযাত্রার মান অনেক টায় কষ্টের হয়ে গেছে। প্রায় ১ বছর ২ মাসের বেশি সময় ধরে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা বন্ধ হয়ে আছে। এছাড়াও করোনার কারণে সকল শিক্ষার্থীদের জীবনযাত্রার মানও অনেক পিছিয়ে গিয়েছে।করোনার কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রয়েছে ১ বছরের বেশি সময় ধরে।

আর এমনিতেই আমাদের দেশে চাকরির অনেক মারাত্মক ভাবে অভাব।তারপরেও জীবনের এ লড়াইয়ে লড়তে হবে এবং সফলতা অর্জন করতে হবে বা ছিনিয়ে আনতে হবে।তথ্য অনুযায়ী আশার বাতির মতো জানা গেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স তৃতীয় বর্ষের ফল প্রকাশ হয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিত ২০১৮ সালের অনার্স তৃতীয় বর্ষের (বিশেষ) পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। গতকাল রোববার এ ফলাফল প্রকাশ করা হয় বলে জানা গিয়েছে।প্রকাশিত ফল শিক্ষার্থীরা এসএমএসের মাধ্যমে পাবেন। এ জন্য যেকোনো মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে NU<space>H3<space>Exam Roll লিখে ১৬২২২ নম্বরে সেন্ড করতে হবে

এছাড়াও শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.nu.ac.bd/results থেকেও ফলাফল জানতে পারবে বলে জানা গিয়েছে।এতো কিছুর পরেও দীর্ঘ সময় পর ফল প্রকাশ হয়েছে।এতে শিক্ষার্থীরা অনেক খুশি কিন্তু শিক্ষার্থীরা চাচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো দ্রুত নিয়ম মেনে খুলে দেওয়া হোক।তারা স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চাচ্ছে।

২০১৮ সালের অনার্স তৃতীয় বর্ষের (বিশেষ) পরীক্ষায় ২৩টি অনার্স বিষয়ে মোট ২ হাজার ২৬৩ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছিলো।। চারটি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছিলো। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রকাশিত ফলাফলে কোনো ধরনের অসংগতি বা ভুলত্রুটি থাকলে তা সংশোধন অথবা ফলাফল সম্পূর্ণ বাতিল করার ক্ষমতা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় সংরক্ষণ করে।

ফলাফল সম্পর্কে কোনো পরীক্ষার্থী বা সংশ্লিষ্ট কারও কোনো আপত্তি/অভিযোগ থাকলে ফলাফল প্রকাশের ৩০ দিনের মধ্য পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বরাবর আবেদন করতে হবে। নির্দিষ্ট সময়ের পরে কোনো আপত্তি/অভিযোগ গ্রহণ হবে না বলেও জানিয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের ফল প্রকাশ হয়েছে এটা আসলেই অনেক খুশির সংবাদ যদিও বা এটা দীর্ঘ সময় পর প্রকাশিত হয়েছে।কিন্তু বর্তমানে সকল শিক্ষার্থীদের একটাই চাওয়া সব নিয়ম মেনে দ্রুত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো খুলে দেওয়া হোক।

আসলে ঘরে বন্ধ থাকতে থাকতে সকলের মন মানসিকতা অনেকটা দূর্বল হয়ে যাচ্ছে।তাদের জীবন অস্বাভাবিক হয়ে যাচ্ছে। তারা জীবনের একটা গতি থেকে ছিটকে পরছে।সবশেষে বলা যায় আমাদের সকলের চাওয়া একটাই যতো দ্রুত সম্ভব মহামারী করোনার বিরুদ্ধে নিয়ম মেনে সবকিছু খুলে দেওয়া হোক।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button

Adblock Detected

Please Disable your AdBlocker.