মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরে চাকরি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরঃ- জানা যায় বাংলাদেশ মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরে চাকরি দেওয়া হবে।এই চাকরিতে বয়সসীমা ৬০ বছর বলে জানা গিয়েছে।তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর সম্প্রতি একটি চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।এখানে প্রতিষ্ঠানটি তাদের প্যানেল আইনজীবী পদে লোক নিয়োগ দিবে বলে জানা যায়।এই চাকরিতে সকল আগ্রহী প্রার্থীরা ডাকযোগে আবেদন করতে পারবেন বলে জানা যায়। এছাড়াও জানা যায় এই চাকরিতে আবেদন ফি=৪০০ টাকা।

নিচে আমরা বাংলাদেশ মহিলা অধিদপ্তরে চাকরি বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবোঃ-

* এখানে চাকরি দিবে সে প্রতিষ্ঠানটি নাম হলোঃ- মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর।

* এখানে চাকরিতে পদের নামটি হলোঃ- প্যানেল আইনজীবী।

* এই চাকরিতে পদের সংখ্যা থাকছেঃ- ৩ টি।

* এই চাকরিতে কাজের ধরন হবেঃ- চুক্তিভিত্তিক।

* এই চাকরিতে কর্মস্থল দেওয়া হবেঃ- ঢাকা।

এবার নিচে আমরা পদগুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবোঃ-

** এখানে মহিলা অধিদপ্তরে এই চাকরিতে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগ এই পদের সংখ্যা হবেঃ- ১টি।

এই পদে চাকরির জন্য আবেদন যোগ্যতা যেগুলো লাগবে তা হলোঃ-

১)এখানে মহিলা অধিদপ্তরে এই পদে চাকরির জন্য যেকোনো প্রতিষ্ঠান হতে এলএলএম ডিগ্রি অথবা এলএলবি সহ এলএমএম ডিগ্রি লাগবে।এছাড়াও বার এট ল বা ডক্টরেট ডিগ্রিধারীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে এই চাকরিতে বলে জানা যায়।

২)এখানে মহিলা অধিদপ্তরে এই পদে চাকরির জন্য সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগ ও আপিল বিভাগে মামলা পরিচালনার ক্ষেত্রে কমপক্ষে ১০ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

৩)এখানে মহিলা অধিদপ্তরে এই পদে চাকরির জন্য বয়সসীমা সর্বোচ্চ ৬০ বছর হওয়া যাবে বলে জানা যায়।

** এখানে এই চাকরিতে প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনাল ও প্রশাসনিক আপিল ট্রাইব্যুনাল পদের সংখ্যা থাকছেঃ-১টি।

এই পদে চাকরির জন্য যেসকল আবেদন যোগ্যতা লাগবে সেগুলো হলোঃ-

১)এখানে মহিলা অধিদপ্তরে এই পদে চাকরির জন্য যেকোনো প্রতিষ্ঠান হতে এলএলএম ডিগ্রি অথবা এলএলবি সহ এলএমএম ডিগ্রি থাকা লাগবে।

২)এখানে মহিলা অধিদপ্তরে এই পদে চাকরির জন্য প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনাল ও প্রশাসনিক আপিল ট্রাইব্যুনাল মামলা পরিচালনার ক্ষেত্রে কমপক্ষে ১০ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

৩)এখানে মহিলা অধিদপ্তরে এই পদে চাকরির জন্য বার কাউন্সিলের সনদ প্রাপ্ত হতে হবে।

৪)এখানে মহিলা অধিদপ্তরে এই পদে চাকরির জন্য বয়সসীমা সর্বোচ্চ ৬০ বছর হওয়া লাগবে।

** এখানে এই চাকরিতে দেওয়ানীসহ অধীনস্থ আদালতসমূহ পদের সংখ্যা হবেঃ-১টি।

এই পদে চাকরির জন্য যেসকল আবেদন যোগ্যতা লাগবে সেগুলো হলোঃ-

১)এখানে মহিলা অধিদপ্তরে এই পদে চাকরির জন্য যেকোনো প্রতিষ্ঠান হতে এলএলএম ডিগ্রিধারী হতে হবে।

২)এখানে মহিলা অধিদপ্তরে এই পদে চাকরির জন্য দেওয়ানী,ফৌজদারি সহ নিম্ন আদালতে সব ধরণের মামলা পরিচালনায় কমপক্ষে ১০ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

৩)এছাড়াও এখানে মহিলা অধিদপ্তরে এই পদে চাকরির জন্য বয়সসীমা সর্বোচ্চ ৬০ বছর হওয়া লাগবে।

এছাড়াও এই চাকরির বিষয়ে যেকোনো ধরনের তথ্য জানতে বা দেখতে নিচের ছবিটি দেখুনঃ-

এই চাকরির জন্য আবেদন প্রক্রিয়াটি হলোঃ-

এই চাকরিতে আগ্রহী সকলের বাংলাদেশ ব্যাংক বা সোনালী ব্যাংকে ট্রেজারি চালানের মাধ্যমে মহাপরিচালক, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর বরাবর আবেদন ফর্ম ও শিডিউল সংগ্রহ করে জমা দিতে হবে।

এই চাকরির আবেদনের শেষ তারিখ হলোঃ-১৩ অক্টোবর ২০২১ পর্যন্ত।

বর্তমানে চাকরির প্রতিযোগীতা মানে এক ধরনের যুদ্ধ আর এই যুদ্ধে জয়ী হয়েই বর্তমানে জীবনযাপন করতে হবে।বর্তমান সময়ে চাকরি পাওয়া বা অর্জন করা খুবই কষ্টকর এবং মুশকিল বলে জানা যায়।আমাদের সকলের উচিত যেকোনো কাজকে ছোট বা অপমান না করে সেটা গ্রহণ করা এবং সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়া।আমাদের দেশে বেকারের সংখ্যা অসংখ্য। সেক্ষেত্রে চাকরি পাওয়া অসম্ভব হয়ে দাড়িয়েছে সকলের জন্য।চাকরি কারো কাছে স্বপ্ন আবার কারো কাছে জীবিকা বা পরিবার চালানোর যন্ত্র হিসেবে চলছে এখন।সুতরাং আমরা যে চাকরি পায় না কেনো পেলে সেটাই কাজ শুরু করে দিবো একসময় পরিশ্রমের মাধ্যমে তাহলে আমরা সফলতা অর্জন করতে পারবো।

এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের শিক্ষা বিষয়ক তথ্য পেতে এবং বিভিন্ন ধরনের চাকরির বিষয়ে তথ্য পেতে আমাদের সাথেই থাকুন সবসময় কারণ আমরা সবসময় চেষ্টা করি মানুষের কাছে সবার আগে সঠিক তথ্যগুলো পৌঁছে দেওয়ার।

Leave a Comment