নতুন কেন্দ্র স্থাপনের আবেদন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে এইচএসসি

নতুন কেন্দ্র স্থাপনের আবেদন শুরু, স্বাস্থ্যবিধি মেনে এইচএসসি পরীক্ষা। বর্তমান বিশ্বে মহামারী করোনার কারণে সবকিছু পিছিয়ে গেছে। এক কথায় মানুষের জীবনযাত্রার মান অনেক টায় কষ্টের হয়ে গেছে।এছাড়াও করোনা মহামারীর কারণে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে।সেক্ষেত্রে শিক্ষার্থীরা পড়াশোনা থেকে অনেক দূরত্বে চলে গেছে।আর আমাদের দেশে পড়াশোনা বন্ধ থাকাতে অনেক শিক্ষার্থীর জীবনযাপন স্বাভাবিক আর নেই। এমনিতে পড়াশোনা বন্ধ তার ওপর দেশে এখন চাকরি পাওয়া সত্যি অনেক মুশকিল।

এমনিতেই আমাদের দেশে চাকরির অনেক মারাত্মক ভাবে অভাব। তারপরেও জীবনের এ লড়াইয়ে লড়তে হবে এবং সফলতা অর্জন করতে হবে বা ছিনিয়ে আনতে হবে। তথ্য অনুযায়ী আশার বাতির মতো জানা গেছে স্বাস্থ্য বিধি মেনে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হবে। করোনার কারণে ১৫ মাসের বেশি সময় সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। এর আগে এইচএসসি পরীক্ষা না হওয়াতে দেওয়া হয়েছে অটো পাস।

মহামারী করোনার কারণে সবকিছু উল্টা পাল্টা হয়ে গেছে।এ পরিস্থিতিতে গত বছরের এইচএসসি, জেএসসি ও প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব কেন্দ্রে ২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা।এছাড়াও ইতিমধ্যে পরীক্ষা নেওয়ার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। এ পরীক্ষার নতুন কেন্দ্র স্থাপন ও কেন্দ্র পরিবর্তনের আবেদন গ্রহণ শুরু করেছে ঢাকা বোর্ড। ১ জুন থেকে শুরু হওয়া এ আবেদন চলবে ৩০ জুন পর্যন্ত।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ড বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, ২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষা তালিকাভুক্ত সব কেন্দ্রকে কোভিড স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নিতে হবে। স্বাস্থ্য বিধি মেনে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া টাও উচিত এর ফলে শিক্ষার্থীরা তাদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবে। ১ জুন ঢাকা শিক্ষা বোর্ড থেকে এ বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। নতুন কেন্দ্র স্থাপন ও কেন্দ্র পরিবর্তনের বিষয়ে বেশ কিছু নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ২০২১ সালে অনুষ্ঠিতব্য এইচএসসি পরীক্ষার জন্য নতুন কেন্দ্র স্থাপন এবং কেন্দ্র পরিবর্তনের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ৩০ জুনের মধ্যে বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বরাবর আবেদন করতে হবে। এ আবেদন প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব প্যাডে করতে হবে।

নতুন কেন্দ্র স্থাপনের আবেদন বাবদ তিন হাজার টাকা (অফেরতযোগ্য) এবং কেন্দ্র পরিবর্তনের ক্ষেত্রে ১ হাজার টাকা (অফেরতযোগ্য) ফি সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে জমা দিতে হবে। ফি জমা দেওয়ার স্লিপ আবেদনপত্রের সঙ্গে জমা দিতে হবে।যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত নয় এবং ভাড়া বাড়িতে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করে, কেন্দ্রের জন্য তাদের আবেদন করার প্রয়োজন নেই। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে নতুন কেন্দ্র অথবা কেন্দ্র পরিবর্তনের নির্ধারিত ছক ডাউনলোড করে পূরণ করা ছক আবেদনপত্রের সঙ্গে জমা দিতে হবে।

\প্রস্তাবিত কেন্দ্রটি বোর্ডের অনুমোদন পেলে পার্শ্ববর্তী যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এ কেন্দ্র পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে ইচ্ছুক, সেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানের নিজস্ব প্যাডে সম্ভাব্য পরীক্ষার্থীদের সংখ্যা উল্লেখ করে সুস্পষ্ট ঘোষণাসহ সম্মতিপত্রের মূল কপি আবেদনপত্রের সঙ্গে যুক্ত করতে হবে। জারি করা নির্দেশনায় বলা হয়েছে, নির্ধারিত তারিখের পর কোনো আবেদন গ্রহণ করা হবে না। ইতিপূর্বে যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষার নতুন কেন্দ্র অথবা কেন্দ্র পরিবর্তনের আবেদন করেছে, তাদের নির্ধারিত ছকে পুনরায় আবেদন করতে হবে। নতুন কোন ভেন্যু কেন্দ্র দেওয়া যাবে না।

২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষা তালিকাভুক্ত সব কেন্দ্রকে কোভিড স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নিতে হবে বলেও নির্দেশনায় বলা হয়েছে। এদিকে এরই মধ্য এইচএসসি পরীক্ষার সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ করা হয়েছে। সিলেবাস প্রকাশের পর শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর ৮৪ দিন ক্লাস করিয়ে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হবে। সকল শিক্ষার্থীর একটাই চাহিদা সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেওয়া হোক এবং তাদের পরীক্ষা গুলো নেওয়া হোক।সবকিছুর পরিকল্পনা করা হচ্ছে কিন্তু মহামারী করোনার কারণে সবকিছু পিছিয়ে যাচ্ছে বা পরিকল্পনা অনুযায়ী করা যাচ্ছে না।

তবে এবার মনে হচ্ছে স্বাস্থ্য বিধি মেনে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হবে আর এটা পরিকল্পনা অনুযায়ী সম্পন্ন হলে সকল শিক্ষার্থীরা অনেক খুশি হবে।এছাড়াও সকল ধরনের শিক্ষা বিষয়ক তথ্য পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

1 thought on “নতুন কেন্দ্র স্থাপনের আবেদন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে এইচএসসি”

Leave a Comment