Job Circular

ঢাকায় মেট্রো রেলে চাকরি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

তথ্য মতে জানা যায় ১৩০ জনকে চাকরি দেওয়া হবে ঢাকায় মেট্রো রেলে। এই চাকরিটি পেতে দ্রুত আবেদন করুন আগ্রহী প্রার্থীরা। ঢাকায় মেট্রো রেলে ১৩০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে।তথ্য মতে জানা গিয়েছে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অধীন ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড সম্প্রতি এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি টি দিয়েছে।এখানে প্রতিষ্ঠানটি তাদের চলমান প্রকল্পের জন্য লোক নিবে বলে জানা যায়।সকল আগ্রহীরা এই চাকরির জন্য ডাকযোগে আবেদন করতে পারবেন বলে জানা যায়।

নিচে আমরা ঢাকায় মেট্রো রেলে চাকরির বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবোঃ-

  • * এখানে চাকরি দিবে সে প্রতিষ্ঠানটির নাম হলোঃ- ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড। * এখানে এই চাকরিতে পদের সংখ্যা থাকছেঃ- ১৩০ টি। * এই চাকরিতে কাজের ধরন হবেঃ-ফুল টাইম। * এই চাকরিতে কর্মস্থল দেওয়া হবেঃ- ঢাকা।

আবেদন করবেন যেভাবে এই চাকরিতে আবেদনের বিষয়ে সকল গুরুত্বপূর্ণ তথ্য নিয়ে আমরা নিচে বিস্তারিত আলোচনা করবোঃ-

১)এখানে ঢাকায় মেট্রো রেলে চাকরির জন্য আবেদনকারীকে অবশ্যই নিম্নলিখিত কাগজপত্রের তথ্য জামা দিতে হবে।এছাড়াও সে কাগজপত্র গুলো প্রথম শ্রেণীর গেজেটেড কর্মকর্তা কর্তৃক সত্যায়িত করে আবেদনপত্রের সঙ্গে সংযুক্ত করতে হবে বলে জানা গিয়েছে। # সেই কাগজপত্র বা তথ্যগুলো হলোঃ- * ৩ কপি রঙ্গিন ছবি সদ্য তোলা যা হতে হবে পাসপোর্ট সাইজের। * এছাড়া লাগবে জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি। * এই চাকরির প্রার্থীর সকল শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্রের ফটোকপিও লাগবে।

২)ঢাকা মেট্রো রেলে চাকরিতে আবেদনপত্রের সঙ্গে আবেদনকারীকে অবশ্যই নিচের লিখিত কাগজপত্রের মূল কপি জমা দিতে হবে বলে জানা যায়। সেই কাগজগুলো হলোঃ- * এখানে চাকরিতে চারিত্রিক সনদপত্র লাগবে যা অবশ্যই প্রথম শ্রেণীর গেজেটেড কর্মকর্তা দ্বারা অনুমোদিত। * এছাড়ার এই চাকরিতে প্রার্থীর নিজ এলাকার স্থানীয় পরিষদ প্রধান (যেমন: সিটি করপোরেশন মেয়র বা কাউন্সিলর, পৌরসভার মেয়র বা কমিশনার অথবা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান) কর্তৃক প্রদত্ত স্থায়ী ঠিকানার সনদপত্র লাগবে অবশ্যই। \

৩)এছাড়াও মেট্রো রেলে চাকরির জন্য পরীক্ষার ফি বাবদ ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড-এর অনুকূলে ৫০০ টাকার পে-অর্ডার/ব্যাংক ড্রাফট করতে।যা করতে হবে সোনালী ব্যাংকের যে কোন শাখায়। এরপর পে-অর্ডার/ব্যাংক ড্রাফটের মূল কপি আবেদনপত্রের সঙ্গে জমা দিতে হবে অবশ্যই।সেক্ষেত্রে তাদের বুঝতে সুবিধা হবে যে প্রার্থী জমা দিয়েছে টাকা।

৪)আর গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হলো একজন প্রার্থী কেবল মাত্র একটি পদে আবেদন করতে পারবেন এই চাকরির ক্ষেত্রে।

৫)এছাড়াও এ চাকরিতে খামের উপর বাম দিকে গ্রুপের নাম, পোস্ট আইডেন্টিফিকেশন নম্বর ও নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির নম্বর উল্লেখ করতে হবে বলে জানা যায়।

৬)এছাড়াও ঢাকা মেট্রো রেলে এই চাকরির জন্য সরকারী/আধা-সরকারী/ কোম্পানি বা প্রকল্পে কর্মরত প্রার্থীদের যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।নাহলে সেটার গুরুত্ব দেওয়া হবে না।

৭)এই চাকরির ক্ষেত্রে হাতে হাতে কোনও দরখাস্ত দাখিল করা যাবে না বলে জানা যায়।এছাড়াও নির্ধারিত সময়ের পর প্রাপ্ত কোন আবেদনপত্র গ্রহণযোগ্য হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।সেক্ষেত্রে সকলকে নির্ধারিত সময়ে আবেদন কাজ সম্পূর্ণ করতে হবে।

৮)ঢাকা মেট্রো রেলে চাকরির জন্য প্রার্থীকে নিজের বর্তমান ঠিকানা স্পষ্টভাবে ৯/ ৪ ইঞ্চি সাইজের খামের উপরে লিখে বা টাইপ করে তাতে ১০ টাকা মূল্যমানের অব্যবহৃত ডাক টিকেট লাগিয়ে আবেদনপত্রের সাথে জমা দিতে হবে।

চাকরির আবেদন ফরমের ছবিটি হলোঃ-

  • এই চাকরিতে সকল আগ্রহী প্রার্থীরা যেভাবে আবেদন করতে পারবেন তা হলোঃ- সকল আগ্রহী প্রার্থীদের এই চাকরির জন্য http://dmtcl.gov.bd/ এই ঠিকানা থেকে আবেদনপত্র সংগ্রহ করতে হবে।তারপর নির্দিষ্ট তথ্য পূরণ করতে হবে এবং সে তথ্য গুলো পাঠাতে হবে ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড, প্রবাসী কল্যাণ ভবন, লেভেল ১৪,৭১-৭২- পুরানা এ্যালিফেন্ট রোড, ইস্কাটন গার্ডেন, ঢাকা- ১০০০ এই ঠিকানায়। এছাড়াও এই চাকরির জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন তথ্যের ছবিটি দেওয়া হলোঃ-

[এই চাকরিতে আবেদনের শেষ হলোঃ-৩১ আগস্ট, ২০২১ পর্যন্ত]।

বর্তমানে মানুষের জীবনের বড় একটি চাহিদা হলো চাকরি পওায়া।এছাড়াও চাকরি একটি জীবনের স্বপ্ন।চাকরি অনেকের জন্য স্বপ্ন,ইচ্ছা আবার অনেকের জন্য পরিবার চালানোর যন্ত্র।বর্তমানে করোনা মহামারীর কারণে পৃথিবীর সবকিছু পিছিয়ে যাচ্ছে।এই খারাপ পরিস্থিতিতে চাকরি পাওয়া খুবই মুশকিল।এর ভেতরে আশার বাতির মতো খবর পাওয়া গিয়েছে ঢাকায় মেট্রো রেলে চাকরি দেওয়া হবে।বর্তমানে মহামারী করোনার কারণে পৃথিবীর সবকিছু পিছিয়ে গেছে।মানুষের জীবনযাত্রার মানও আর স্বাভাবিক নাই।অনেক মানুষকে চাকরি হারাতে হয়েছে আবার অনেক কোম্পানি হয়ে গিয়েছে দেউলিয়া শুধুমাত্র এই করোনা মহামারীর কারণে।

তাই বর্তমানের এই কঠিন সময়ে যেকোনো চাকরি পেলে সেটা গ্রহণ করা উচিত এবং সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়া উচিত।আর চাকরির জন্য নিজেকে প্রস্তুত করা এবং নিজের সর্বোচ্চ টুকু দিয়ে চেষ্টা করাও উচিত।কারণ বর্তমান সময়ে চাকরি পাওয়া প্রায়ই অসম্ভব।আর আমাদের দেশের সকল মানুষের চিন্তা ভাবনা একটাই মানুষকে কিভাবে অপমান করবো মানুষকে কিভাবে ছোট দেখাবো এছাড়াও নান নেতিবাচক কাজ তো রয়েছেই।তাই আমাদের সকলের উচিত এসকল চিন্তা ভাবনা থেকে বের হয়ে আসা এবং যেকোনো চাকরি সেটা ছোট হোক টাও সেটা গ্রহণ করে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়া।কারণ প্রতিটা মানুষ ছোট থেকে বড় হয় পরিশ্রমের মাধ্যমে।কিন্তু আমাদের সমাজ সেটা মেনে নিতে পারে না,আমাদের চিন্তা ভাবনা সেটা মেনে নিতে পারে।সুতরাং আমাদের সকলের উচিত যেকোনো কর্মে যোগ দিয়ে সেটার মাধ্যমে সামনের দিকে এগিয়ে পরিশ্রমের সাথে সফলতা অর্জন করা।

এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের চাকরির তথ্য পেতে এবং বিভিন্ন ধরনের শিক্ষা বিষয়ক তথ্য পেতে আমাদের সাথেই থাকুন সবসময়।আমরা সবসময় চেষ্টা করি সবার আগে মানুষরে কাছে সঠিক তথ্য পৌঁছে দেওয়ার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button

Adblock Detected

Please Disable your AdBlocker.