AdmissionUniversity Admission

MIST যোগ্য তালিকা ২০২২ – প্রবেশপত্র ডাউনলোড করুন

বাংলাদেশ মিলিটারি ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি MIST যোগ্য তালিকা ২০২২ প্রকাশ করা হয়েছে। শুধুমাত্র সংক্ষিপ্ত তালিকাভুক্ত প্রার্থীরাই ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। এমআইএসটি ভর্তির সংক্ষিপ্ত তালিকা ২০২২ আজ ১৪ মার্চ ২০২২ তারিখে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি অনুসারে প্রকাশিত হয়েছে। MIST শর্টলিস্ট ২০২১ admission.mist.ac.bd ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। দুটি সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে. একটি হল এইচএসসি এবং সমমানের পরীক্ষার বছর ২০২১ এর জন্য এবং অন্যটি হল এইচএসসি এবং সমমানের পরীক্ষা ২০২০ (সেকেন্ড টাইমারের জন্য)। এমআইএসটি যোগ্যতা যাচাইয়ের জন্য অফিসিয়াল ভর্তির ওয়েবসাইট দেখুন বা ভর্তি পরীক্ষার জন্য আপনার যোগ্যতা পরীক্ষা করতে এখানে ক্লিক করুন। স্ক্রীনটি সঠিকভাবে লোড না হলে দয়া করে পুনরায় লোড করুন। উচ্চ ট্রাফিকের জন্য MIST ভর্তির ওয়েবসাইটে সার্ভারের সমস্যা হতে পারে। আপনি যদি ভর্তি পরীক্ষার জন্য যোগ্য হন, আপনি ব্যবহারকারী আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারেন।

  • সংক্ষিপ্ত তালিকাভুক্ত প্রার্থীদের এমআইএসটি ভর্তি ২০২০-২০২১-এর জন্য লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের অনুমতি দেওয়া হবে। এই প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছে: ২০২১ এবং ২০২০ সালে H.S.C বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা।
  • আবেদনকারীদের দুটি পৃথক তালিকা (একটি চলতি বছরের জন্য এবং অন্যটি গত বছরের জন্য) শুধুমাত্র লিখিত ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য নির্বাচনের উদ্দেশ্যে তৈরি করা হবে।
  • সংক্ষিপ্ত তালিকাভুক্ত প্রার্থীদের নাম ১৪ মার্চ ২০২২ তারিখে MIST ওয়েবসাইটে (www.mist.ac.bd) অনলাইনে প্রকাশ করা হবে। যোগ্য প্রার্থীদের সংক্ষিপ্ত তালিকাটি প্রথম টাইমার এবং দ্বিতীয় টাইমার উভয়ের জন্য নীচে থেকে ডাউনলোড করা যেতে পারে।

এমআইএসটি অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড ২০২২

বাংলাদেশ এমআইএসটি ২০২১-২২ ভর্তি পরীক্ষার জন্য MIST যোগ্য তালিকা ইতিমধ্যেই প্রকাশ করা হয়েছে। মিলিটারি ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির অ্যাডমিট কার্ড ২০২২ ও প্রকাশিত হয়েছে। শুধুমাত্র সংক্ষিপ্ত তালিকার যোগ্য প্রার্থীরাই প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন। যোগ্য প্রার্থীদের অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড সম্পর্কে পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে এসএমএস দ্বারা অবহিত করা হবে। এসএমএস পাওয়ার পর প্রার্থীরা অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন।

প্রার্থীরা তাদের ব্যবহারকারী আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারেন। ভর্তি পরীক্ষার তারিখ, সময়, পরীক্ষার কেন্দ্রের নাম ও ঠিকানা অ্যাডমিট কার্ডে উল্লেখ থাকবে।

প্রবেশপত্র কালার প্রিন্ট হতে হবে। প্রবেশপত্রের জন্য কাগজের আকার A4 হওয়া উচিত। পরীক্ষা সংক্রান্ত বিস্তারিত নির্দেশনা প্রবেশপত্রে উল্লেখ করা আছে। ভর্তি পরীক্ষার তারিখ পর্যন্ত প্রয়োজনে অ্যাডমিট কার্ডটি অনেকবার ডাউনলোড করা যেতে পারে।

MIST ভর্তি পরীক্ষার আসন পরিকল্পনা

বাংলাদেশ মিলিটারি ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি এমআইএসটি আসন পরিকল্পনা অ্যাডমিট কার্ডে উল্লেখ করা হয়েছে। আপনার আসনের অবস্থান জানতে প্রথমে অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করুন। আপনি সেখানে আপনার কেন্দ্রের নাম, আসনের অবস্থান এবং ঠিকানা পাবেন। প্রার্থীদের অবশ্যই ভর্তি পরীক্ষার ৪৫ মিনিট আগে পরীক্ষার কেন্দ্রে উপস্থিত হতে হবে। প্রবেশপত্রে উল্লিখিত পরীক্ষার কেন্দ্রের অবস্থানের মানচিত্র। ভর্তি পরীক্ষা 2022 এর জন্য কোন অতিরিক্ত আসন পরিকল্পনা প্রকাশ করা হবে না।

মিলিটারি ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি ভর্তি 2021-22

আবেদন শুরু: 17 ফেব্রুয়ারি 2022

আবেদনের শেষ তারিখ: 5 মার্চ 2022

ভর্তি পরীক্ষার তারিখ: 18 মার্চ 2021

ভর্তি কেন্দ্রঃ ঢাকা, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, খুলনা ও বগুড়া
(অনলাইনে আবেদন জমা দেওয়ার সময় আবেদনকারীকে অবশ্যই পছন্দসই ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্র নির্বাচন করতে হবে)

এমআইএসটি মার্ক বিতরণ ও পরীক্ষা পদ্ধতি

কোনো বহুনির্বাচনী প্রশ্ন (MCQ) থাকবে না। প্রশ্নগুলো হবে ইংরেজি ও বাংলা উভয় ভাষায় এবং আবেদনকারীরা ইংরেজি বা বাংলায় উত্তর দিতে পারবেন। উভয় ইউনিটের জন্য মার্ক বিতরণ নিম্নরূপ:

Ser Unit Subject Marks Remarks
1. Unit A
(Engineering
andArchitecture)
Mathematics 40 Total Marks: 100
Examination Duration: 2 hours
2. Physics 30
3. Chemistry 20
4. English 10
5. Unit B

(Architecture)

Drawing and
Architecture
related topics
100 Total Marks: 100 (A) + 100 (B)

Examination Duration: (2+2) hours with
break in-between

এমআইএসটি ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২২

বাংলাদেশ মিলিটারি ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি এমআইএসটি ভর্তি সার্কুলার ২০২২ প্রকাশিত হয়েছে। MIST ভর্তির ফর্ম ২০২১-২২ ভর্তির ওয়েবসাইট admission.mist.ac.bd এর মাধ্যমে পূরণ করা যেতে পারে। এমআইএসটি আন্ডারগ্র্যাজুয়েট প্রোগ্রামে (ইঞ্জিনিয়ারিং এবং আর্কিটেকচার) ভর্তির জন্য দেশ ও বিদেশ থেকে এইচএসসি/জিসিই বা সমমানের পরীক্ষা (সায়েন্স গ্রুপ) পাশ করা বাংলাদেশি নাগরিকদের কাছ থেকে দরখাস্ত আহ্বান করা হচ্ছে। যোগ্য এবং আগ্রহী প্রার্থীদের অনলাইনে আবেদন করতে হবে। অনলাইন আবেদনের সময়সীমার পরে, যোগ্য প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হবে এবং প্রবেশপত্র প্রকাশ করা হবে। নির্ধারিত আসন পরিকল্পনা অনুযায়ী ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। MIST ভর্তির ফলাফল প্রকাশের পর মেধা তালিকা এবং অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে।

স্নাতক প্রোগ্রামের জন্য ইউনিট এ (ইঞ্জিনিয়ারিং প্রোগ্রাম) এবং ইউনিট বি (স্থাপত্য) নামে দুটি ইউনিট থাকবে। A এবং B উভয় ইউনিটের জন্য বরাদ্দকৃত মোট আসন হবে 570টি।

MIST আবেদন করার যোগ্যতা

  • এসএসসি (বা সমতুল্য): বিজ্ঞান গ্রুপে 2019 এবং 2018 সালে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ আবেদনকারীরা 5.00 স্কেলে ন্যূনতম জিপিএ 4.00 (চতুর্থ বিষয় ছাড়া) পেয়েছিলেন।
  • এইচএসসি পরীক্ষা (বা সমতুল্য): 2021 এবং 2020 সালে পাস করা আবেদনকারীরা চারটি বিষয়ে (গণিত, পদার্থবিদ্যা, রসায়ন এবং ইংরেজি) ন্যূনতম মোট গ্রেড পয়েন্ট 17 পেয়েছিলেন।

 

  • GCE (‘O’ এবং ‘A’ স্তর বা সমতুল্য):
    (1) GCE ‘O’ লেভেলে গণিত, পদার্থবিদ্যা, রসায়ন এবং ইংরেজি সহ পাঁচটি বিষয়ে ন্যূনতম ‘B’ গ্রেড নিয়ে 2019 এবং 2018 সালে পাস করা আবেদনকারীরা।
    (2) GCE ‘A’ লেভেলে গণিত, পদার্থবিদ্যা এবং রসায়নে ন্যূনতম দুটি ‘B’ গ্রেড এবং একটি ‘C’ গ্রেড নিয়ে 2021 এবং 2020 সালে পাস করা আবেদনকারীরা।
  • বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে আগ্রহী আবেদনকারীদের অবশ্যই এইচএসসি বা সমমানের স্তরে জীববিজ্ঞান থাকতে হবে যার ন্যূনতম গ্রেড পয়েন্ট ‘A-‘/ GCE ‘A’ বা ন্যূনতম গ্রেড পয়েন্ট ‘C’ এর সাথে সমতুল্য স্তর থাকতে হবে।

এমআইএসটি ভর্তির ফর্ম ২০২২

আবেদনপত্র জমা। শুধুমাত্র MIST ওয়েবসাইট (www.mist.ac.bd) এর মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন জমা দিতে হবে। আবেদন করতে এখানে ক্লিক করুন. আবেদনপত্র জমা দেওয়ার পর, আবেদনকারী অনলাইনে একটি ইউজার আইডি পাবেন। সেই USER ID দিয়ে, আবেদনকারীকে প্রয়োজনীয় ব্যালেন্স সহ টেলি-টক প্রি-পেইড মোবাইল ফোন থেকে 16222 নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে। আবেদন ফি ইউনিট A এর জন্য 800 টাকা (আটশত) এবং ইউনিট B এবং ইউনিট (A+B) এর জন্য 1000 (এক হাজার) টাকা। ই-আবেদন এবং ফি জমা দেওয়ার বিস্তারিত নির্দেশাবলী MIST ওয়েবসাইটে দেওয়া আছে। উভয়ই সফলভাবে সম্পন্ন হলে, আবেদনকারী এসএমএসের মাধ্যমে একটি পাসওয়ার্ড পাবেন যা ব্যবহার করে একজন যোগ্য আবেদনকারী অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন।
MIST যোগ্য তালিকা ২০২২

MIST কোটা আবেদনকারীদের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

ক মুক্তিযোদ্ধা. সম্পর্কিত বাংলাদেশ গেজেট / মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক জারিকৃত অস্থায়ী সনদ / লালমুক্তিবার্তা / ভারতীয় তালিকা / বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধ সংসদের সার্টিফিকেট এবং মুক্তিযোদ্ধার সাথে সম্পর্কের শংসাপত্র।
খ. মিলিটারি ওয়ার্ড (সামরিক কর্মীদের সন্তান)।
(1) পরিবেশন করা। সংস্থার প্রধান / অনুমোদিত কর্মকর্তাদের কাছ থেকে শংসাপত্র।
(2) অবসরপ্রাপ্ত।
(a) কর্মকর্তারা। CORO/নৌ সচিবালয়/এয়ার সেক্রেটারিয়েট থেকে সার্টিফিকেট।
(b) সেনাবাহিনী/নৌবাহিনী/এয়ার ফোর্সের JCO/ OR/ NC(E): সংশ্লিষ্ট অস্ত্র/সেবার রেকর্ড অফিস/ড্রাফটিং অফিস থেকে সার্টিফিকেট/ সার্ভিস রেকর্ড বুক।
গ. উপজাতি। স্থানীয় উপজেলা চেয়ারম্যান কর্তৃক প্রদত্ত শংসাপত্র এবং জেলা প্রশাসকের পাল্টা স্বাক্ষর।
ঘ. সমস্ত কোটা আবেদনকারীদের জন্য, উপরে উল্লিখিত মূল নথি (হার্ডকপি) কোটা প্রমাণীকরণ / যাচাইকরণের জন্য 22 ফেব্রুয়ারি 2021 এর মধ্যে MIST ভর্তি অফিসে জমা দিতে হবে।

ভর্তি/শিক্ষা প্রক্রিয়ার যেকোনো পর্যায়ে কোনো অসম্পূর্ণ/মিথ্যা তথ্য পাওয়া গেলে ভর্তি বাতিল করা হবে। MIST ওয়েবসাইট (www.mist.ac.bd) এবং ভর্তি হেল্প ডেস্ক (01769024090/01769024094) থেকে আরও স্পষ্টীকরণ চাওয়া যেতে পারে।

এমআইএসটি ভর্তির ফলাফল ২০২২

এমআইএসটি ভর্তির ফলাফল ২০২১ ভর্তি www.mist.ac.bd ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে। বাংলাদেশ মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির ভর্তি পরীক্ষার মেধা তালিকা ও অপেক্ষমাণ তালিকা একযোগে প্রকাশ করা হয়েছে। সাধারণ কোটা, সামরিক ওয়ার্ড কোটা, মুক্তিযোদ্ধা কোটা ও উপজাতি কোটার জন্য পৃথক মেধা তালিকা ও অপেক্ষমাণ তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এমআইএসটি ভর্তির ফলাফল ২০২০-২১-এ সাধারণ কোটায় মোট 357 জন প্রার্থী, সামরিক ওয়ার্ড কোটা থেকে 248 জন, মুক্তিযোদ্ধা কোটা থেকে 12 জন এবং ইঞ্জিনিয়ারিং প্রোগ্রামের উপজাতি বিভাগ থেকে 3 জন প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন।

অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে MIST ভর্তি মেধা তালিকা থেকে ভর্তি সম্পন্ন করার পর সম্পন্ন করা হবে। নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের অবশ্যই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তাদের ভর্তি সম্পন্ন করতে হবে। মেধাতালিকা থেকে ভর্তি সম্পন্ন হলে অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে ভর্তি সম্পন্ন করা হবে।

নির্বাচিত তালিকা-2 থেকে প্রার্থীদের 25 মার্চ 2021 থেকে 274 মার্চ 2021 (সকাল 9 AM থেকে 3 PM পর্যন্ত) MIST ভর্তির জন্য ডাকা হয়েছে। মেরিট অর্ডার অনুযায়ী প্রয়োজনীয় নথির তালিকা এবং ভর্তির সময়সূচী নিচে দেওয়া হল। ভর্তির জন্য MIST-এ আসার আগে, প্রার্থীদের অবশ্যই প্রাক-নিবন্ধনের আনুষ্ঠানিকতা সম্পূর্ণ করতে হবে।

এমআইএসটি ফলাফল ২০২১-২২

এমআইএসটি ভর্তির ফলাফল ২০২১ সম্পূর্ণভাবে ভর্তি পরীক্ষার মার্কের ভিত্তিতে প্রকাশিত হবে। যদি কোন প্রার্থী লিখিত পরীক্ষায় 40% নম্বর পায়, তবে তাকে উত্তীর্ণ হিসাবে গণ্য করা হবে। এসএসসি/সমমান এবং এইচএসসি/সমমান পরীক্ষার ফলাফল বিবেচনা করা হবে না। মেধা তালিকা ও অপেক্ষমাণ তালিকা প্রণয়নের ক্ষেত্রে শুধুমাত্র লিখিত পরীক্ষার ফলাফল বিবেচনা করা হবে।

এমআইএসটি ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল কীভাবে জানবেন?

বাংলাদেশ মিলিটারি ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি এমআইএসটি ভর্তির ফলাফল ২০২২ প্রকাশিত হয়েছে। এমআইএসটি ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল ২০২১-২২ ইঞ্জিনিয়ারিং এবং আর্কিটেকচার উভয় ইউনিটের জন্য প্রকাশিত হয়েছে। জেনারেল, মিলিটারি ওয়ার্ড, মুক্তিযোদ্ধা ও উপজাতি কোটার জন্য বেশ কিছু পিডিএফ প্রকাশ করা হয়েছে। সাধারণ, সামরিক পদ এবং মুক্তিযোদ্ধা কোটার জন্যও অপেক্ষমাণ তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

MIST ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল 2022 মিলিটারি ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির ভর্তির ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে। ফলাফল জানতে ভিজিট করুন admission.mist.ac.bd অথবা MIST এর ভর্তি পরীক্ষার ফলাফলের জন্য এখানে ক্লিক করুন। আপনি নীচে থেকে ফলাফল PDF ফাইল ডাউনলোড করতে পারেন। ২০২১-২২  আন্ডারগ্রাজুয়েট প্রোগ্রাম ভর্তি পরীক্ষার জন্য MIST ভর্তির ফলাফল এখানে আপলোড করা হবে।

ভর্তির জন্য নির্বাচনের মানদণ্ড

  • চূড়ান্ত নির্বাচনের জন্য প্রার্থীদের MIST ভর্তির ফলাফল শুধুমাত্র লিখিত পরীক্ষার (100%) ভিত্তিতে প্রস্তুত করা হবে।
  • লিখিত পরীক্ষায় ন্যূনতম যোগ্যতার নম্বরগুলি হল ইউনিট A এবং ইউনিট B উভয়ের জন্য 40%। HSC বা সমমানের স্তরে জীববিজ্ঞান ন্যূনতম (A-)
  • গ্রেড পয়েন্ট সহ বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের আবেদনকারীদের জন্য আবশ্যক।
  • ন্যূনতম গ্রেড পয়েন্ট ‘C* সহ বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের আবেদনকারীদের জন্য GCE বা সমমানের স্তরে জীববিদ্যা আবশ্যক।
  • গত বছরের (2019) প্রার্থীদের লিখিত পরীক্ষা থেকে 5% নম্বর কাটা হবে। তারপরে, ভর্তি ও বিভাগ বরাদ্দের জন্য একটি সম্মিলিত মেধা তালিকা (চলতি বছর এবং গত বছরের প্রার্থীদের) প্রস্তুত করা হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button

Adblock Detected

Please Disable your AdBlocker.